জাভেদ করিম - Jawed Karim  ইউটিউবের বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠাতার নাম

জাভেদ করিম - Jawed Karim  ইউটিউবের বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠাতার নাম কি

ইউটিউবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা জাভেদ করিম হলেন বাংলাদেশী: তার পিতা নাইমুল করিম এবং জার্মান মা ক্রিস্টিন করিম। জাভেদ করিম পূর্ব জার্মানির মের্সবার্গে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি ইউটিউবে “Me at the zoo” শিরোনামে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন।

জাভেদ করিম

জাওয়েদ করিম (জন্ম ১৯৭৯) জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউবের সহ-প্রতিষ্ঠাতা। তার জন্ম তৎকালীন পূর্ব জার্মানিতে। তার বাবানাইমুল করিম৩এম কোম্পানিতে কর্মরত একজন বাংলাদেশি গবেষক। রিয়েল-টাইম ইন্টারনেট জালিয়াতি বিরোধী সিস্টেম সহ পেপ্যাল এর অনেক মূল উপাদান করিমের দ্বারা পরিকল্পিত এবং বাস্তবায়িত হয়েছে। তার মাক্রিস্টিন করিমইউনিভার্সিটি অফ মিনেসোটাতে প্রাণ-রসায়নের একটি গবেষণা সহকারী অধ্যাপক। করিম জার্মানিতে বড় হয়েছেন. কিন্তু তার পরিবার ১৯৯২ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলে যায়।

বট কি। গেইমে (পাবজি - ফ্রি ফায়ার) বট বলতে কি বোঝায়?

বট কি । গেইমে (পাবজি - ফ্রি ফায়ার) বট বলতে কি বোঝায়?
বট কি, গেইমে (পাবজি - ফ্রি ফায়ার) বট বলতে কি বোঝায়?আচ্ছা আপনি কি কখনো লক্ষ্য করেছেন যে আপনি START এ ট্যাপ করলে ম্যাচটি সাধারণত 10-20 সেকেন্ডের মধ্যে বা কখনও কখনও তাৎক্ষণিকভাবে শুরু হয়? আপনি কি মনে করেন আপনার মত 100 জন খেলোয়াড় আছে যারা ঠিক একই সময়ে START বোতামে আঘাত করেছে? না। গেমটি সেই সমস্ত লোকেদের গ্রুপ করার চেষ্টা করে যারা START বোতাম টিপে আপনার এক মিনিটের মধ্যে এটিকে একটি গেম - আপনার গেমে টেপে। তবে এমন সময় আছে যখন 100 জন জড়ো করা সম্ভব হয় না কখনও কখনও 10 জনও জড়ো করা কঠিন। ধরা যাক গেমটি একই সময়ে আপনার মতো 50 জনকে খেলছে। কিন্তু আমাদের 100 সঠিক প্রয়োজন অন্যথায় গেমটি নিস্তেজ হয়ে যাবে এবং আপনি কাউকে হত্যা করার জন্য খুঁজে পাবেন না। এখানে BOT আসে!

বিওটিএস হল কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত প্লেয়ার যা স্পষ্টতই যুদ্ধ এবং অন্যান্য জিনিসের জন্য মানুষের দক্ষতা ধারণ করে না। তারা আমাদের উদাহরণে অন্য 50 জন খেলোয়াড়কে পূরণ করতে সেখানে আছে।

মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজ চালু করল সকল মোবাইল অপারেটর

মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজ চালু করল সকল মোবাইল অপারেটর

মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজ চালু করল সকল মোবাইল অপারেটরআনলিমিটেড বা মেয়াদহীন ইন্টারনেট ডাটা প্যাকেজ চালু করল বাংলাদেশের সকল মোবাইল অপারেটর টেলিটক আনলিমিটেড মেয়াদের ইন্টারনেট প্যাকেজ চালু করেছে সবার আগেই। টেলিটকের দুটি মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজ রয়েছে গত মার্চ মাস থেকেই। এখন বাকি অপারেটরগুলোও মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজ চালু করল। শুরুতেই জানিয়ে দিচ্ছি একমাত্র টেলিটকের মেয়াদহীন ডাটা প্যাকেজের মেয়াদ হবে সত্যিকার অর্থে আনলিমিটেড মেয়াদের। এটা সিস্টেমের কারণে হয়ত ১৪ বছরের মত মেয়াদ দেখাবে। আপনি নিশ্চয়ই এর বেশি মেয়াদ চাইবেন না!

বাকি অপারেটরগুলো, অর্থাৎ গ্রামীণফোন, রবি এবং বাংলালিংক আনলিমিটেড মেয়াদ বলতে বোঝাচ্ছে ১ বছর। অর্থাৎ তাদের নির্দিষ্ট কিছু ডাটা প্যাকের মেয়াদ হবে ১ বছর বা ৩৬৫ দিন। সেগুলোকেই তারা মেয়াদহীন বলছে। কারণ হিসেবে যেটা জানা গেছে সেটা হচ্ছে, সাধারণত মোবাইল ডাটা প্যাকের মেয়াদ হয়ে থাকে কয়েক দিন থেকে কয়েক সপ্তাহ, বা এক মাস। যেহেতু এই নতুন ডাটা প্যাকগুলো সচরাচর মেয়াদের চেয়ে অনেক বেশি মেয়াদ দিচ্ছে, তাই এটাকে তারা বলছে আনলিমিটেড মেয়াদ।